বর্ত্তমান প্রেক্ষাপট নিয়ে লেখা দুটি কবিতা

দেশের খোঁজ
—————–

পথ হারানো পথিক আমি
এসেছি আমি তোমাদের কাছে আজ,
তোমরাই আমকে দিতে পার
নতুন একটি দেশের খোঁজ।

কতযে পথে চলেছি আমি,
ঘুরেছি কতনা দেশে
কোথাও একটু সস্থি পাইনি
অবশেষে তোমাদের কাছে।

তোমারা আমায় দাও
এমন একটি দেশের সন্ধান,
যেখানে কোন সংঘাত নেই
আছে শুধু ভ্রাতৃত্বের বন্ধন।

যে দেশের মানুষ বোঝে
ভালবাসা কারে কয়,
এমন একটি দেশ চাইছি
ঠিক এমনি যেন হয়।

যাদের কোন দুঃখ নাই
মুখে শুধু হাসিই সোভাপায়,
যাদের কোন ক্লান্তি নেই
যারা সব কাজেই আনন্দ পায়।

যারা কখনো বোঝেনা
কিভাবে ঘুষ খায়,
যারা কখনো জেলে যায়না
দুর্নীতি করার দায়।

যারা দেশকে ভালবাসে
সদা দেশের উন্নতি চায়,
যারা দেশের জন্য জীবন দিয়েও
নিজ দেশকে বাঁচায়।

হে নবীন, তোমরাই পার
এমন একটি দেশ আমায় দিতে,
যেখানে আমরা সবাই ভাই ভাই
বাসকরব সবাই সুখে শান্তিতে।

টাকার নেশা
——————–

আমি সুখী হব কেমনে
সবসময় এই ভাবি মনেমনে,
সুখের মাঝেই কাটাব এ জীবন
তাইত থাকি ব্যাস্ত সারাক্ষণ।

দিন কাটে ব্যাস্ততার মাঝে
ব্যাস্ত থাকি সকাল সাঁঝে,
ছুটি শুধু টাকার পিছে
ভাবি টাকা ছাড়া সবি মিছে।

জীবনে একটু সুখের আশায়
ডুবলাম আমি টাকার নেশায়,
দিনের পর দিন চলে যায়
বাড়ে আমার টাকার আয়।

হঠাৎ এক অজানা অসুখে
জীবন কাটে ব্যাথা আর দু:খে,
সবি পাই হাতের নাগালে
তবু সুখ নাই আমার কপালে।

বাড়ী গাড়ি সবি করলাম
কিছুতেই সুখ না পেলাম,
সুখের জন্য কলাম এত কিছু
সুখ ছেড়েছে আমার পিছু।

হাসপাতালে থাকি পরে
দেখতে আসেনা কেউ আমারে,
গরেছি আমি টাকার পাহাড়
অথচ খেতে পারছিনা একমুঠো আহার।

ব্যাথায় বুকটা ছটফট করে
দুচোখ দিয়ে পানি ঝরে,
দুনিয়ার ধন থাকে দুনিয়াতে
আমি চলে যাই আখেরাতে।

পোস্টটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।